, ১ জানুয়ারি ২০২১; ১:০২ অপরাহ্ণ


 

ডেস্ক রিপোর্টঃ  সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের যুগ্ম আহ্বায়ক ফারুক হাসানকে মোটরসাইকেলে করে তুলে নিতে গিয়েছে ছাত্রলীগ। সর্বশেষ পাওয়া খবরে ছাত্রলীগ তার মোবাইল থেকে গ্রুপ ও পেজ হ্যাক করার চেষ্টা চালাচ্ছে।

ঘোষিত কর্মসূচি অনুযায়ী আজ সকালে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার চত্বরে কোটা সংস্কার আন্দোলনকারীরা মানববন্ধন করার সময় তাঁদের ওপর হামলা হয়। তাঁদের কিল, ঘুষি, লাথি মেরে ও পিটিয়ে ছত্রভঙ্গ করে দেওয়া হয়।

প্রত্যক্ষদর্শী কয়েকজন জানান, হামলাকারীরা ছাত্রলীগের কর্মী। তাঁদের মধ্যে ছাত্রলীগের প্রচার সম্পাদক সাইফ বাবু, স্কুলছাত্র বিষয়ক সম্পাদক জয়নাল আবেদিন, মহসীন হলের ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মেহেদী হাসান সানিসহ বেশ কয়েকজনকে দেখা গেছে।

সকাল ১০টা ৫০ মিনিটে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারের সামনে কোটা সংস্কার আন্দোলনের আহ্বায়ক হাসান আল মামুন, যুগ্ম আহ্বায়ক ফারুক হোসেনের নেতৃত্বে ১৫ থেকে ২০ জন মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করছিলেন। এ সময় আন্দোলনকারীদের ওপর ১০-১৫ জন হামলা চালায়। তারা কিল, ঘুষি, লাথি মেরে ও পিটিয়ে মানববন্ধনকারীদের ছত্রভঙ্গ করে দেয়।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, বেলা ১১টা ৫ মিনিটের দিকে আবার ৮-১০ জন আন্দোলনকারী ব্যানার নিয়ে শহীদ মিনারের সামনে দাঁড়ান। এ সময় তাঁদের ওপরেও সাইফ বাবু, জয়নাল আবেদিন ও মেহেদি হাসান সানিকে হামলা চালাতে দেখা যায়।

পূর্বঘোষিত কর্মসূচি অনুযায়ী আজ ঢাকাসহ সারা দেশে বিশ্ববিদ্যালয় ও বিশ্ববিদ্যালয় কলেজে বিক্ষোভ কর্মসূচির দিন ধার্য ছিল। গত শনিবার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় লাইব্রেরির সামনে কোটা সংস্কার আন্দোলনকারীদের ওপর হামলা চালায় ছাত্রলীগ। ওই ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে গতকাল ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় বাদে সকল বিশ্ববিদ্যালয় ও বিশ্ববিদ্যালয় কলেজে মানববন্ধন কর্মসূচি ছিল। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় দিবস হওয়ার কারণে গতকাল সেখানে কর্মসূচি পালন করা হয়নি।

সম্পর্কিত লেখা


আরও পড়ুন