বৃহস্পতিবার, ১৬ জুন ২০২১; ৪:১১ অপরাহ্ণ


সৈয়দ শিমুল পারভেজ

কোটা সংস্কার আন্দোলনের শুরু থেকেই আমি নিজে ছিলাম এবং আমার অনেক ছাত্রলীগ বন্ধুও ছিল। কিন্তু কোন এক অশুভ শক্তির প্রভাবে ছাত্রলীগের কিছু নেতা-কর্মী আন্দোলনটিকে দমিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করছে। এই অবস্থায় মাঝে মাঝে মনে হয় এই আন্দোলন বন্ধ করে দেয়াই ভাল! কোটা সংস্কার দরকার নেই, পারলে প্রধানমন্ত্রী ৮০% পর্যন্ত কোটা বহাল রাখুক!

আপনি কার জন্য আন্দোলন করবেন? ছাত্রলীগ কি এই আন্দোলনের সুফল ভোগ করবে না?

বিগত বছর গুলোতো শুধু কি ছাত্রলীগই চাকরি পেয়েছে? বিভিন্ন অনুসন্ধানে বের হয়ে এসেছে যে এই সরকারের আমলে বিপিএসসি সহ বড়বড় চাকুরী গুলো সবচেয়ে কম পেয়েছে ছাত্রলীগ, এই জন্য মন্ত্রী-এমপিদের কেও ব্যাপক বেগ পেতে হয়েছে!

কিন্তু সেই ছাত্রলীগ ক্যামনে পারে যৌক্তিক আন্দোলনকারী ছাত্রদের হাতুড়ি দিয়ে পিটিয়ে চিরতরে পঙ্গু করে দিতে? এইদেশে আমরা তো রোহিঙ্গাদের চেয়েও বেশি অসহায়! যে জাতির পিতার বেশির ভাগ সময় কেটেছে যৌক্তিক আন্দোলন-সংগ্রাম কিংবা অধিকাংশ সময় জেল খেটে শুধুমাত্র মানুষের জন্য কথা বলে, অথচ আজ তার বাংলায় এ কি অবস্থা?

আবার দুঃখটা তখনই বেশি লাগে যখন ঐ সকল নেতাদের বক্তব্যে নিয়মিত শোনা যায় আমরা ৫২, ৬৮, ৬৯, ৭১ ও ৯০ দশকে এ রক্ত দিয়েছি ইত্যাদিসহ নানা চেতনার কথা কিন্তু আজ যারা ন্যায্য দাবী তুলে ধরেছে তাদের কেন আপনারাই দমিয়ে রাখছেন? শুধু দমনই নয়, রক্তাক্ত উপায়ে যেভাবে আপনারা আচরণ করছেন ইতিহাসের আস্তাকুড়ে আপনাদের নাম লেখা হবে।

আপনাদের চেতনা কি বলে, এই চেতনা কেবল ভাষনেই সীমাবদ্ধ থাকবে? সকলের সুবুদ্ধি কামনা করছি।

—শিমুল পারভেজ একজন সঙ্গীতশিল্পী, সাংবাদিক ও মানবাধিকারকর্মী। 

সম্পর্কিত লেখা


আরও পড়ুন