শনিবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১; ১১:৩২ অপরাহ্ণ


মধ্যপ্রাচ্যের জঙ্গিগোষ্ঠী ইসলামিক স্টেট (আইএস) ও তার প্রধান আবু বকর আল-বাগদাদি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সৃষ্টি বলে মন্তব্য করেছে রাশিয়া। সিরিয়ায় মার্কিন অভিযানে আইএসের এই প্রধান নিহত হওয়ার পর শুক্রবার এক বিবৃতিতে ওই মন্তব্য করেছে দেশটি।

রুশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, আইএস ও বাগদাদি যুক্তরাষ্ট্রেরই সৃষ্টি। শীর্ষ সন্ত্রাসী বাগদাদি যদি সত্যিই নিহত হয়ে থাকে তাহলে বলতে হবে যুক্তরাষ্ট্র নিজের হাতে বাগদাদিকে তৈরি করে আবার নিজেই তাকে হত্যা করেছে।

পর্যবেক্ষকরা বলছেন, ওয়াশিংটন ২০০৯ সালে ইরাকের আবু গরিব কারাগার থেকে আবু বকর আল বাগদাদিকে ছেড়ে দেয়ার পর তারই নেতৃত্বে আইএস গড়ে উঠে। এরপর আইএস ইরাক ও সিরিয়ায় নজিরবিহীন গণহত্যা ও ধ্বংসযজ্ঞ চালিয়েছে। বাগদাদিকে ব্যবহার শেষে আমেরিকা তাকে হত্যা করল যাতে বাগদাদি ও আইএস সৃষ্টিতে মার্কিন হাত থাকার বিষয়টি কিংবা অন্যান্য গোপন রহস্য যাতে কেউ কখনও জানতে না পারে।

ইরানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে মুখপাত্র সাইয়্যেদ আব্বাস মুসাভি বলেছেন, নিহত আবু বকর আল বাগদাদিসহ আইএসের অন্যান্য শীর্ষ নেতারা স্বীকার করেছেন তাদের আগমনের পেছনে আমেরিকার হাত রয়েছে। এসব সন্ত্রাসী গোষ্ঠীর নির্দিষ্ট মেয়াদ রয়েছে এবং ব্যবহার শেষে তাদেরকে ছুঁড়ে ফেলে দেয় আমেরিকা।

প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প ২০১৬ সালে নির্বাচনী প্রচার চালানোর সময় বলেছিলেন, সাবেক প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা আইএস সৃষ্টি করেছেন। আইএস সৃষ্টিতে সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী হিলারি ক্লিন্টনেরও হাত রয়েছে বলে তিনি জানিয়েছিলেন। পার্সট্যুডে।

শনিবার মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেছেন, আইএসের নতুন প্রধানের ব্যাপারে তথ্য ভালো করেই জানে যুক্তরাষ্ট্র। এর আগে রোববার উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলীয় সিরিয়ার ইদলিব প্রদেশে গভীর রাতে এক অভিযানে আইএস খলিফা বাগদাদি নিহত হয়েছেন বলে দাবি করেন ট্রাম্প।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প বহুবার দাবি করেছেন, তারা আইএসকে নির্মূলে বদ্ধপরিকর। কিন্তু বাস্তবে দেখা গেছে তিনি আইএসকে অর্থ ও অস্ত্র দিয়ে আরো শক্তিশালী করেছেন।

সম্পর্কিত লেখা


আরও পড়ুন