মঙ্গলবার, ২ আগস্ট ২০২১; ১২:০১ পূর্বাহ্ণ


উত্তরা বিশ্ববিদ্যালয়ের ঘটনার রেশ না কাটতেই জেগে উঠেছে তিতুমীর কলেজের শিক্ষার্থীরা। দীর্ঘদিন ধরেই নগরে সিটিং সার্ভিস এর নামে বিভিন্ন রুটে বাসগুলো যাত্রীদের কাছ থেকে দ্বিগুণ ভাড়া আদায় করে ও যাত্রীদের হয়রানি করে। তিতুমীর কলেজের সম্মুখস্থ রুটে চলাচল করা অগ্রদূত বাস আটকে দিয়ে প্রতিবাদ করছে শিক্ষার্থীরা।

২৪ এপ্রিল মঙ্গলবার ছাএদের সাথে খারাপ ব্যবহার করায় প্রতিবাদ করে উঠে শিক্ষার্থীরা। অগ্রদূত পরিবহন দাবি করে যে এটা সিটিং সার্ভিস ও এই সার্ভিসে কোন হাফ ভাড়া চলবে না। কিন্তু হাফ ভাড়া শিক্ষার্থীদের আইনী অধিকার এই মর্মে এক শিক্ষার্থী হাফ ভাড়া দিতে চাইলে তাকে বাস থেকে নামিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করা হয়। এর প্রতিবাদে  আজ বিকেলে অগ্রদূত পরিবহন লিঃ এর ১৫ টি বাস আটক করেছে তিতুমীর কলেজের শিক্ষার্থীরা। শিক্ষার্থীদের দাবি, গণপরিবহনে হয়রানি বন্ধ করতে হবে ও শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে হাফ ভাড়া নিতে হবে কারণ বেশিরভাগ শিক্ষার্থীরাই মধ্যবিত্ত শ্রেণী থেকে আসা এবং অর্থনৈতিকভাবে আত্ননির্ভর।

এক কোটা সংস্কার আন্দোলন বদলে দিয়েছে পুরো ছাত্র সমাজ। এই তারুণ্যের মাঝে আছে দেশপ্রেম, আছে দেশকে পরিবর্তনের ব্রত। তিতুমীর কলেজের শিক্ষার্থীদের সংগ্রামী অভিনন্দন।

সম্পর্কিত লেখা


আরও পড়ুন