মঙ্গলবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০২১; ৪:৪৭ অপরাহ্ণ


ফ্রিটজ ফন ভাইৎসেকার। ছবি-সংগৃহীত

বার্লিনে একটি হাসপাতালে বক্তৃতা করার সময় জার্মানির প্রয়াত প্রেসিডেন্ট রিচার্ড ফন ভাইৎসেকারের ছেলে ফ্রিটজ ফন ভাইৎসেকারকে (৫৯) হত্যা করা হয়েছে।

স্থানীয় সময় মঙ্গলবার সন্ধ্যা ৭টার দিকে তাকে ছুরিকাঘাতে হত্যা করা হয়।

ঘটনার সময় ঘাতককে আটক করা হয়েছে। সিএনএনের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, পুলিশ ওই ব্যক্তিকে গ্রেফতার দেখিয়েছে। তিনিও জার্মান নাগরিক।

স্থানীয় পুলিশ জানিয়েছে, ওই হামলায় তাদের এক পুলিশ সদস্য গুরুতর আহত হয়েছেন। তবে তিনি শঙ্কামুক্ত।

খবরে বলা হয়, ঘটনার সময় বার্লিনের শার্লেটনবুর্গ এলাকার শ্লসপার্ক হাসপাতালে ‘লিভারে চর্বি ও তার প্রতিকার’ বিষয়ে বক্তৃতা করছিলেন ফ্রিটজ ফন।

এমন সময় শ্রোতাদের মাঝ থেকে একজন উঠে এসে তাকে ছুরিকাঘাত করেন। ফ্রিটজ ফন ভাইৎসেকার শ্লসপার্ক হাসপাতালের একজন মেডিসিন বিশেষজ্ঞ।

মঙ্গলবারের বক্তৃতার সময়ও বেশ কিছু শ্রোতা সেখানে উপস্থিত ছিলেন। বেশ কিছু শ্রোতা ও এক পুলিশ সদস্য ওই আততায়ীকে ঠেকাতে গিয়েছিলেন। কিন্তু তার আগেই ফ্রিটজ ফন ভাইৎসেকার হামলার শিকার হন।

হামলা ঠেকাতে গিয়ে ওই পুলিশ সদস্য আহত হয়েছেন। উপস্থিত শ্রোতারা হামলাকারীকে ধরতে সক্ষম হন।

৫৯ বছর বয়স্ক এই সাবেক প্রেসিডেন্টের ছেলের চিকিৎসক হিসেবে বেশ সুনাম রয়েছে। তিনি ইতিপূর্বে ফ্রাইবুর্গ, বোস্টন ও জুরিখে কাজ করবার পর ২০০৫ সালে বার্লিনের শ্লসপার্ক হাসপাতালে যোগ দেন।

তবে ওই ব্যক্তি কী কারণে এই হত্যাকাণ্ড ঘটিয়েছে তা এখনও পরিষ্কার নয়। স্থানীয় সময় বুধবার তাকে বার্লিনের আদালতে নেয়া হবে।

প্রসঙ্গত জার্মানির প্রয়াত প্রেসিডেন্ট রিচার্ড ফন ভাইৎসেকার ১৯৮৪ থেকে ১৯৯৪ সাল পর্যন্ত প্রেসিডেন্ট হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। এর আগে তিনি বার্লিনের মেয়র ছিলেন।

সম্পর্কিত লেখা


আরও পড়ুন