মঙ্গলবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০২১; ৮:৫৫ অপরাহ্ণ


ছবিঃ সংগৃহীত

বিটিআরসির পাওনা সাড়ে ১২ হাজার কোটি টাকার মধ্যে দুই হাজার কোটি টাকা পরিশোধের জন্য গ্রামীনফোনকে নির্দেশ দিয়েছে আপিল বিভাগ। আগামী তিন মাসের মধ্যে এ অর্থ পরিশোধ করার নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

প্রধান বিচারপতির নেতৃত্বে সাত বিচারপতির একটি বেঞ্চ রোববার সকালে এ আদেশ দেয়।

বিটিআরসির আইনজীবী খন্দকার রেজা-ই-রাকিব জানিয়েছেন, আপিল বিভাগ বিটিআরসির পাওনা অর্থের মধ্য থেকে অবিলম্বে গ্রামীনফোনকে দুই হাজার কোটি টাকা পরিশোধের নির্দেশ দিয়েছে।

“নয়তো এ অর্থ পরিশোধের ওপর হাইকোর্টের স্থগিতাদেশ প্রত্যাহার করা হবে বলে আদালত জানিয়েছে। এর মানে হচ্ছে, গ্রামীণফোন হাইকোর্ট থেকে এ বিষয়ে যে স্থগিতাদেশ নিয়েছিল, তা বহাল রাখতে হলে স্বত্বর এই অর্থ বিটিআরসিকে পরিশোধ করতে হবে।”

বিষয়টি নিয়ে এখনো গ্রামীণফোনের মন্তব্য জানা যায়নি।

তবে, এই আদেশের বিরুদ্ধে রিভিউ করার জন্য গ্রামীণফোনের হাতে এক মাস সময় রয়েছে।

গত ২রা এপ্রিল গ্রামীণফোনকে একটি নোটিশের মাধ্যমে বিটিআরসিকে ৮ হাজার ৪৯৪ কোটি ১ লাখ টাকা আর জাতীয় রাজস্ব বোর্ডকে ৪ হাজার ৮৫ কোটি ৯৪ লাখ টাকা প্রদান করার নির্দেশ দেয় বিটিআরসি।

বিটিআরসির নিয়োগ করা একটি অডিট ফার্ম ১৯৯৭ সাল থেকে ২০১৪ সাল পর্যন্ত সময়ে এই বকেয়া তৈরি হয়েছে বলে প্রতিবেদন দেয়।

তবে এর আগে এই অর্থ নিয়ে আপত্তি প্রকাশ করেছে গ্রামীণ ফোন।

গত ১৭ই অক্টোবর বাংলাদেশের প্রধান দুইটি মোবাইল অপারেটর গ্রামীণ ফোন এবং রবি-আজিয়াটায় প্রশাসক নিয়োগের সিদ্ধান্ত নেয় সরকার।

একই সঙ্গে গ্রামীণফোনের কাছে বিটিআরসির পাওনা দাবি সাড়ে ১২ কোটি টাকার বেশি অর্থ আদায়ের ওপর দুই মাসের নিষেধাজ্ঞা দেয় হাইকোর্ট।

বাংলাদেশে ১৬ কোটির বেশি মোবাইল ফোন গ্রাহক রয়েছে, যার তিন-চতুর্থাংশ গ্রাহক গ্রামীণফোন এবং রবি-আজিয়াটাযর।সুত্রঃ বিবিসি।

সম্পর্কিত লেখা


আরও পড়ুন