শুক্রবার, ২ জানুয়ারি ২০২১; ১১:২১ অপরাহ্ণ


হায়দরাবাদের সাংসদ আসাদুদ্দিন ওয়াইসি সোমবার লোকসভঅয় প্রবল বিতর্কের মধ্যে নাগরিকত্ব (সংশোধনী) বিলের একটি কপি ছিঁড়ে ফেললেন। এর আগে তিনি বলেন, ‘‘এটা দেশকে ভাগ করার প্রচেষ্টা। প্রস্তাবিত আইনটি আমাদের দেশের সংবিধানের বিরোধী।”

‘অল ইন্ডিয়া মজলিস-ই-ইত্তেহাদুল মুসলিমিন’ দলের নেতা আসাদুদ্দিন ওয়াইসি বরাবরই বলে এসেছেন প্রস্তাবিত আইন দেশকে ধর্মের ভিত্তিতে ভাগ করবে। তিনি দাবি করেন, এই নাগরিকত্ব বিল আরও এক দেশভাগের কথা বলছে। এটা করা হচ্ছে মুসলিমদের ‘‘রাষ্ট্রহীন” করে দেওয়ার জন্য।

তিনি বলেন, গান্ধি ‘‘মহাত্মা” হয়েছিলেন দক্ষিণ আফ্রিকার বৈষম্যমূলক নাগরিকত্ব কার্ডের বিরোধিতা করার পর। তিনি প্রশ্ন তোলেন তিনি কেন তাহলে নাগরিকত্ব (সংশোধনী) বিলের বিরোধিতা করবেন না।

এরপরই তিনি বিলের কপিটি ছিঁড়ে ফেলেন। তাঁর এই কাজকে সংসদের ‘‘অপমান” বলে দাবি করেন শাসক দলের সাংসদরা।

আসাদুদ্দিন ওয়াইসি বিজেপি সরকারকে অভিযুক্ত করে বলেন, এভাবে মুসলিমদের রাষ্ট্রহীন করতে চেয়ে দেশের স্বাধীনতা সংগ্রামীদের অপমান করছে সরকার।

কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ বিতর্কিত নাগরিকত্ব (সংশোধনী) বিল সংসদে পেশ করলেন সোমবার। তিনি তীব্র ভাবে প্রতিবাদ করে জানান, কোনও ভাবেই এই বিল সংবিধানের ১৪ নম্বর ধারাকে লঙ্ঘন করছে না।

সোমবার লোকসভায় এই বিল পেশ করার পর কংগ্রেস সাংসদরা আপত্তি জানায়, এই বিল মুসলিমদের বিরুদ্ধে। অমিত শাহ জোর দিয়ে বলেন, এই বিল ‘‘এমনকী ০.০০১ শতাংশ” ভারতের সংখ্যালঘুদের বিরুদ্ধে নয়।

সম্পর্কিত লেখা


আরও পড়ুন