রবিবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২১; ১২:২২ পূর্বাহ্ণ


ভারতে এনআরসি ও সিএএ আইনের বিরুদ্ধে আন্দোলনরতদের প্রতি সংহতি জানাতে মঙ্গলবার (১৭ ডিসেম্বর) ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের রাজু ভাস্কর্য চত্বরে সমাবেশের ডাক দিয়েছিলেন ডাকসুর ভিপি নুরুল হক নূর। সেই সমাবেশ পণ্ড করে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চের একাংশের সভাপতি আমিনুল ইসলাম বুলবুল, সাধারণ সম্পাদক আল মামুনের নেতৃত্বে ছাত্রলীগের ১০/১৫ জন নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে।

হামলার ঘটনায় বিস্ময় প্রকাশ করে প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে ভারতের টাইমস অব ইন্ডিয়া গ্রুপের সংবাদ মাধ্যম ‘দৈনিক এই সময়’। তাদের শিরোনাম,  ‘ভারতের আইন, অথচ বাংলাদেশে NRC-CAA বিরোধী সমাবেশে হামলা!’

প্রতিবেদনে বলা হয়, নাগরিকত্ব সংশোধনী আইনে প্রতিবাদরত ভারতীয়দের পাশে দাঁড়াতে গিয়ে আক্রান্ত হতে হলো ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদের (ডাকসু) সহ-সভাপতি (ভিপি) নুরুল হক নূরকে। বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদের (ডাকসু) সহ-সভাপতি (ভিপি) নুরুল হক নূরের ওপর হামলা চালানোর অভিযোগ মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চের একাংশের ওপরে। এ হামলায় নুরুল হক নূর ও ডাকসুর সমাজসেবা সম্পাদক আখতার হোসেনসহ অন্তত ১০ জন আহত হয়েছেন।

ভারতের জাতীয় নাগরিকপঞ্জি (এনআরসি) ও নাগরিকত্ব সংশোধনী আইনের (সিএবি) বিরুদ্ধে আন্দোলনরত ভারতীয়দের প্রতি সংহতি জানাতে মঙ্গলবার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সন্ত্রাসবিরোধী রাজু ভাস্কর্যের সামনে চলা বিক্ষোভ মিছিল ও সংহতি সমাবেশে এ হামলা চালানো হয়। এর আগে মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চের একাংশ রাজু ভাস্কর্যে অবস্থান নেন। ডাকসুর ভিপি নুরুল হক নির্ধারিত সময়ে সেখানে এলে মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চের একাংশের সভাপতি আমিনুল ইসলাম বুলবুল ও সাধারণ সম্পাদক আল মামুন দলবল নিয়ে ডাকসুর ভিপি ও তার অনুসারীদের ওপর হামলা চালান।

আহতরা ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতাল এবং বিশ্ববিদ্যালয় চিকিৎসা কেন্দ্রে জরুরি বিভাগে চিকিৎসাধীন ভিপি নুরুল হক নূর, রবিউল ইসলাম, আমিনুল ইসলাম, নাহিদ, আব্দুল কাদের, আকরাম হোসেন, মেহেদী হাসান, রিফাত উল্লাহ চিকিৎসা নেন

সম্পর্কিত লেখা


আরও পড়ুন