বৃহস্পতিবার, ২৩ জুন ২০২১; ১০:০০ অপরাহ্ণ


তুরাগ বাসে ছাত্রী হয়রানীতে আটককৃতদের সঠিক বিচার দাবিতে আজ শনিবার ২৮ এপ্রিল জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে উত্তরা বিশ্ববিদ্যালয়ের শতাধিক শিক্ষার্থীর অংশগ্রহণে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। মানববন্ধনে ৯ দফা দাবি পেশ করা হয়। মানববন্ধনে উত্তরা বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ সর্বাত্বক সহায়তা প্রদান করেন।

ঘটনার সূত্রপাত গত ২১ এপ্রিল। সেদিন দুপুর ১টার দিকে উত্তরা বিশ্ববিদ্যালয়ের কম্পিউটার ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের এক ছাত্রী বাড্ডা থেকে উত্তরায় বিশ্ববিদ্যালয়ে আসার পথে তুরাগ বাসে যৌন হয়রানির শিকার হন। পথে বিভিন্ন পয়েন্টে যাত্রীরা নেমে যেতে থাকলে বাসটি ফাঁকা হয়ে যেতে থাকে। অন্যদিকে বাসটিতে কোন নতুন যাত্রী না উঠানোতে ভয় পেয়ে শেষ কয়েকজন যাত্রীর সঙ্গে তিনিও বসুন্ধরা আবাসিক এলাকার গেটে বাস থেকে নামতে যান। তখন হেলপার-কন্ডাক্টর হাত ধরে তাকে আটকানোর চেষ্টা করে। উপায়ন্তর না পেয়ে প্রাণের ঝুঁকি নিয়েই তিনি চলন্ত বাস থেকে লাফিয়ে নেমে নিজেকে রক্ষা করেন।

পরবর্তীতে এই ঘটনার সুষ্ঠু বিচারের দাবিতে শিক্ষার্থীরা তুরাগ বাস আটক করে ও পুলিশকে আল্টিমেটামের মুখে গ্রেপ্তার হয় তিন অপরাধী। অপরাধীরা যাতে ছাড়া না পেয়ে যায় ও অপরাধীদের সঠিক বিচারের দাবিতে আজকে অনুষ্ঠিত হয় এই মানববন্ধন।

মানববন্ধনে উপস্থিত শিক্ষার্থীরা দাবি করেন, এই ঘটনার যথাযথ বিচার না হওয়া পর্যন্ত তারা ধারাবাহিক আন্দোলন ও কর্মসূচী চালিয়ে যাবে।

 

রিপোর্টঃ এস এম হাসান, অন্যতম প্রতিষ্ঠাতা, ইউইউ ড্রিমার্স ক্লাব 

সম্পর্কিত লেখা


আরও পড়ুন