, ২০ জুন ২০২১; ১০:১৮ অপরাহ্ণ


দীর্ঘ প্রতীক্ষিত মধ্যপ্রাচ্য শান্তি পরিকল্পনা ঘোষণা করেছেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। গতকাল মঙ্গলবার ঘোষিত এই পরিকল্পনায় তিনি জেরুজালেমকে ইসরায়েলের রাজধানী হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন।

এই পরিকল্পনায় ইসরায়েল–ফিলিস্তিন সমস্যার দ্বিরাষ্ট্রীয় সমাধানের প্রস্তাবই করেছেন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প। বলেছেন, তাঁর এই পরিকল্পনা বাস্তবায়িত হলে কোনো ইসরায়েলি বা ফিলিস্তিনি নিজ বাড়িঘর থেকে উচ্ছেদ হবেন না।

হোয়াইট হাউসে ট্রাম্প যখন পরিকল্পনার ঘোষণা দেন, তখন তাঁর পাশে ছিলেন ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু। এ সময় ট্রাম্প বলেন, ফিলিস্তিনিদের জন্য শেষ সুযোগ হতে পারে তাঁর এই পরিকল্পনা।

ট্রাম্পের এই প্রস্তাবে কী কী থাকতে পারে, তা মোটামুটি আগেই ফাঁস হয়ে গিয়েছিল। কাজেই ফিলিস্তিনিরা আগেই ট্রাম্পের এ প্রস্তাব নাকচ করে দিয়েছেন।

বিশ্বের অন্যতম দীর্ঘায়িত এই সংকট সমাধানে করা এ পরিকল্পনা মূলত ট্রাম্পের জামাতা জ্যারেড কুশনারেরই মস্তিষ্কপ্রসূত।

হোয়াইট হাউসের অনুষ্ঠানে ট্রাম্প বলেন, শান্তির পথে আজ এক বড় পদক্ষেপ নিল ইসরায়েল। তিনি আরও বলেন, ফিলিস্তিনিরা আছে দারিদ্র্য আর সহিংসতার মধ্যে। সন্ত্রাসবাদের ঘুঁটি হিসেবে অন্যরা তাদের ব্যবহার করছে।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট আরও বলেন, শান্তি প্রতিষ্ঠার স্বার্থে এই প্রথম ওই এলাকার ভূখণ্ড নিয়ে একটি খসড়া মানচিত্র তৈরিতে সায় দিয়েছে ইসরায়েল।

সম্পর্কিত লেখা


আরও পড়ুন