, ১ জানুয়ারি ২০২১; ৪:৪৪ অপরাহ্ণ


ঢাকার দুই সিটি নির্বাচনের ফল বাতিলের দাবিতে মঙ্গলবার (৪ ফেব্রুয়ারি) ঢাকা মহানগরীতে বিক্ষোভ কর্মসূচি পালন করবে বিএনপি। এই প্রসঙ্গে দলটির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, ‘সিটি নির্বাচনের ফল বাতিল, গণতন্ত্র পুনরুদ্ধার ও খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে ৪ ফেব্রুয়ারি ঢাকা মহানগরীর থানায় থানায় বিক্ষোভ-সমাবেশের কর্মসূচি ঘোষণা করছি। পরবর্তী সময়ে আবারও কর্মসূচি দেবো।’ রবিবার (২ ফেব্রুয়ারি) বিকালে নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে  আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এই কর্মসূচি ঘোষণা করেন।

প্রধানমন্ত্রীকে নির্বাচন কমিশনের দায়িত্ব পালন করতে হয়

‘নির্বাচনের দিন সকালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সবাইকে নৌকায় ভোট দিতে বলেছেন’ অভিযোগ করে বিএনপির মহাসচিব বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ ছাড়া এই দেশে কিছুই নড়ে না। নির্বাচন কমিশনের দায়িত্বগুলোও তাকে পালন করতে হয়। বারবার বলেছি, এই সরকার, নির্বাচন কমিশন ও প্রশাসনের মধ্যে কোনও পার্থক্য নেই। এই দেশ পুরোপুরি ফ্যাসিবাদী রাষ্ট্রে পরিণত হয়েছে। বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই ফ্যাসিবাদী রাষ্ট্রগুলো ব্যর্থ রাষ্ট্রে পরিণত হয়। বাংলাদেশও এখন পুরোপুরিভাবে ফ্যাসিবাদী রাষ্ট্র হয়ে গেছে।’

‘হরতাল সফল করায় ঢাকাবাসীকে অভিনন্দন’

‘হরতাল সফলভাবে’ পালনের জন্য ঢাকাবাসীকে অভিনন্দন জানিয়ে মির্জা ফখরুল বলেন, ‘স্বল্প সময়ের নোটিশে হরতাল সফলভাবে পালনের জন্য ঢাকাবাসীকে অভিনন্দন জানাই।’

হরতালের সমর্থনে ঢাকার বিভিন্ন ওয়ার্ডে পিকেটিং করার সময় ৩-৪ নেতাকর্মীকে পুলিশ গ্রেফতার করেছে অভিযোগ করে মির্জা ফখরুল তাদের মুক্তিরও দাবি জানান।  তিনি বলেন, ‘কিছুক্ষণের মধ্যে আমাদের আহ্বানে সকাল-সন্ধ্যা ডাকা হরতাল শেষ হতে যাচ্ছে। এই হরতাল আহ্বান করেছিলাম ঢাকা সিটি করপোরেশনের নির্বাচনে যে প্রহসন করা হয়েছে, তার প্রতিবাদে, নির্বাচনের ফলাফল প্রত্যাখ্যান করে।’

সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা হাবিবুর রহমান হাবিব, যুগ্ম মহাসচিব খায়রুল কবির খোকন, হাবিব উন নবী খান সোহেল, সাংগঠনিক সম্পাদক শামা ওবায়েদ প্রমুখ।

সম্পর্কিত লেখা


আরও পড়ুন