, ২০ জুন ২০২১; ১২:৫৯ পূর্বাহ্ণ


অধিকৃত কাশ্মীর নিয়ে তুর্কি প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোগানের মন্তব্যের পর সোমবার তুরস্কের রাষ্ট্রদূতকে তলব করে কূটনৈতিক প্রতিবাদ জানিয়েছে ভারত। হুশিয়ারি দিয়ে বলা হয়েছে, এতে দুই দেশের সম্পর্ক ক্ষতিগ্রস্ত হতে পারে।-খবর রয়টার্সের

কাশ্মীর বিরোধের ইতিহাস না জেনে বুঝেই এরদোগান মন্তব্য করেছেন বলে তুরস্কের রাষ্ট্রদূত সাকির ওজকান তুলনারকে জানিয়েছে ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।

এরদোগান গত সপ্তাহে পাকিস্তান সফরের সময় বলেছিলেন, ভারতের একতরফা পদক্ষেপের কারণে অধিকৃত কাশ্মীরের পরিস্থিতির অবনতি হচ্ছে। তুরস্ক কাশ্মীরের জনগণের পাশে আছে বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

তার এ মন্তব্যে ক্ষুব্ধ হয়ে ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রালয়ের মুখপাত্র রবীশ কুমার বলেছেন, এটি ভারতের অভ্যন্তরীন বিষয়ে তুরস্কের নাক গলানোর আরেকটি উদাহরণ। এ ধরনের মন্তব্য ভারতের কাছে কোনোভাবেই গ্রহণযোগ্য নয়।

তিনি বলেন, ভারত জোরালো পদক্ষেপ বা আনুষ্ঠানিক কূটনৈতিক নোট দিয়েছে।

গত ব্ছরের আগস্টে কাশ্মীরের বিশেষ স্বায়ত্তশাসনের মর্যাদা বাতিল করে ভূখণ্ডটিকে ইউনিয়নের সঙ্গে একীভূত করার ঘোষণা দিয়েছে ভারতের হিন্দুত্ববাদী নরেন্দ্র মোদি সরকার। এরপর সেখানে দীর্ঘ অচলাবস্থা জারি ও নিপীড়ন অব্যাহত রাখা হয়েছে।

কাশ্মীরের অধিকাংশ রাজনৈতিক নেতাকে কারাবন্দি করে রাখার পাশাপাশি বিদেশি পর্যবেক্ষকদেরও সেখানে ঢুকতে দিচ্ছে না ভারত।

সম্পর্কিত লেখা


আরও পড়ুন