মঙ্গলবার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২১; ৭:৫১ পূর্বাহ্ণ


দিল্লির বুকে সাম্প্রদায়িক সহিংসতার দগদগে ঘায়ে মলম লাগানোর চেষ্টা হলেও সাম্প্রদায়িক উস্কানি দাতারা থেমে নেই। শনিবার দিল্লি মেট্রোর রাজীব চক স্টেশনে এমনই উস্কানি দেয়া স্লোগানের ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়তেই ব্যাপক চাঞ্চল্য দেখা দিয়েছে। এর আগেও সহিংসতার সময় উস্কানিমূলক স্লোগান শোনা গেছে।

তবে এদিন জনবহুল মেট্রো স্টেশনের অভ্যন্তরে যাত্রী সেজে সাদা টি-শার্ট ও মাথায় গেরোয়া পট্টি বাঁধা একদল যুবককে বলতে শোনা গেছে, গুলি মারো, দেশ কে গদ্দারোঁ কো গুলি মারো শালে…। বেশ কিছুক্ষণ সময় এই ধরনের উস্কানিমূলক স্লোগান দেয়ার পর মেট্রোর নিরাপত্তা কর্মীরা মোট ছয় জনকে আটক করে রেল পুলিশের হাতে তুলে দিয়েছে বলে জানা গেছে। মেট্রো সূত্রে বলা হয়েছে, সকাল ১০টা ৫২ মিনিট নাগাদ রাজীব চক স্টেশনে এই ঘটনা ঘটেছে।

উল্লেখ্য, মেট্রো স্টেশনে সব ধরনের বিক্ষোভ সমাবেশ নিষিদ্ধ। ঘটনাস্থলে থাকা সংবাদ সংস্থা পিটিআই’র এক সাংবাদিক বলেছেন, একটি ট্রেন প্ল্যাটফরমে ঢোকার সময় তার যাত্রী একদল যুবক চিৎকার করে স্লোগান দিচ্ছিল। তারা ট্রেন থেকে স্টেশনে নেমেও একই ধরনের স্লোগান দিচ্ছিল। পাশাপাশি নাগরিকত্ব আইনের সমর্থনেও তারা স্লোগান দিচ্ছিল বলে প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন।

বারে বারে ‘গদ্দারোঁ কো গুলি মারো’ বলে স্লোগান দিয়ে যাচ্ছিল বলেও জানা গেছে। এরপরেই মেট্রোর নিরাপত্তা কর্মীরা ৬ জনকে ধরে ফেলে। ইতিমধ্যে দিল্লিতে বিজেপি’র বেশ কয়েকজন নেতা এই একই স্লোগান দিয়ে সাম্প্রদায়িক সহিংসতায় উস্কানি দিয়েছেন বলে অভিযোগ উঠেছে।

দিল্লির বিজেপি বিধায়ক অভয় ভার্মা কয়েকদিন আগেই রাস্তায় যেতে যেতে গুলি মারো বলে হুঙ্কার দিচ্ছিল এমন ভিডিও সামাজিক গণমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে। আদালতেও এদের বিরুদ্ধে অভিযোগ জানানো হয়েছে।

সম্পর্কিত লেখা


আরও পড়ুন