, ১৩ জুন ২০২১; ৯:৩৬ অপরাহ্ণ


ইরাকে যুক্তরাষ্ট্র ও যুক্তরাজ্যের সেনাঘাঁটিতে রকেট হামলায় তিনজন নিহত হয়েছেন। যুক্তরাষ্ট্রের সেনাবাহিনীর সূত্র বলছে, নিহত ব্যক্তিদের মধ্যে একজন মার্কিন সেনা, একজন মার্কিন ঠিকাদার ও একজন ব্রিটিশ সেনা রয়েছেন। তাঁদের নাম এখনো জানা যায়নি।

বিবিসির খবরে জানা যায়, স্থানীয় সময় গতকাল বুধবার বাগদাদের উত্তরে তাজি সেনাশিবিরে এই হামলায় আহত হয়েছেন কমপক্ষে ১২ জন।

গত জানুয়ারি মাসে ইরানের জ্যেষ্ঠ কমান্ডার কাসেম সোলাইমানি ড্রোন হামলায় নিহত হওয়ার পর থেকে যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে দেশটির সম্পর্ক উত্তপ্ত হয়ে উঠেছে। ৮ জানুয়ারি যুক্তরাষ্ট্রের একটি সেনাঘাঁটিতে ইরানের পাল্টা হামলায় শতাধিক সেনা মস্তিষ্কে আঘাতজনিত রোগে ভুগছেন। এরপর থেকে দুই দেশের সম্পর্কে খুব বেশি চড়াই-উতরাই ঘটেনি।

ইরাক ও সিরিয়ায় নিযুক্ত যুক্তরাষ্ট্রের নেতৃত্বাধীন যৌথবাহিনীর বিবৃতি বলছে, ওই ঘাঁটিতে ১৮টি রকেট হামলা হয়েছে। যৌথবাহিনীর তিনজন সেনা নিহত হয়েছেন।

যৌথবাহিনীর একজন মুখপাত্র এর আগে টুইট করেন, স্থানীয় সময় গতকাল এই হামলার ঘটনা ঘটে। এ নিয়ে তদন্ত চলছে বলে জানান তিনি।

যুক্তরাজ্যের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় বলছে, তাজি ক্যাম্পে যুক্তরাজ্যের সেনারাও ছিলেন। এখনই তিনি এ বিষয়ে কোনো মন্তব্য করতে চাননি। এ নিয়ে তদন্ত চলছে বলে জানান।

যুক্তরাজ্যের প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন এক বিবৃতিতে এই হামলা দুঃখজনক বলে মন্তব্য করেন। তিনি বলেন, যুক্তরাজ্যের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে এ নিয়ে কথা বলেছেন। তাঁরা আন্তর্জাতিক অংশীদারদের সঙ্গে এই ঘৃণ্য হামলা নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করবেন।

এই হামলার দায় কেউ স্বীকার করেনি। যুক্তরাষ্ট্র ও যুক্তরাজ্যও কাউকে হামলার ব্যাপারে দোষারোপ করেনি। তবে ওয়াশিংটন এর আগে এ ধরনের হামলার জন্য ইরাকে নিযুক্ত ইরান–সমর্থিত দলগুলোকে দায়ী করেছে।

সম্পর্কিত লেখা


আরও পড়ুন