, ২০ জুন ২০২১; ১০:৪০ অপরাহ্ণ


করোনা ভাইরাস মোকাবেলায় বড় রকমের ঝুঁকির মুখে রয়েছে বাংলাদেশ। একদিকে নমুনা পরীক্ষার জন্য কীট সঙ্কট। এই মুহূর্তে মাত্র ১৭৫০টি কীট রয়েছে। অন্যদিকে জনসচেতনতাও কম। হাসপাতালগুলোতে বেশির ভাগেরই প্রস্তুতি নেই। মাত্র দুটি হাসপাতালে বিশেষ ব্যবস্থা রয়েছে।

এর মধ্যে বিদেশ ফেরতরা কোয়ারেন্টিনে না থেকে যার যার বাড়িতে চলে যাচ্ছেন। গত ১ সপ্তাহে প্রায় ১ লাখ মানুষ দেশে ফিরেছেন। এর মধ্যে বেশির ভাগই পরীক্ষার বাইরে থেকে গেছেন। বিশেষ করে ইতালি ফেরতরা কোয়ারেন্টিনে না থেকে বাড়ি চলে যাওয়ায় সংশয় আরো বেড়েছে। এদের মধ্যে অনেকেই এলাকায় সামাজিক বয়কটের সম্মুখীন হচ্ছেন।

বাংলাদেশে রোগ নির্ণয়ের কেন্দ্র রয়েছে মাত্র একটি। প্রতিদিন ১ হাজার জনের নমুনা পরীক্ষার সক্ষমতা রয়েছে। যদিও বাস্তবে ৩০ জনেরও কম লোকের পরীক্ষা হচ্ছে।

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, রোগ নির্ণয় সঠিকভাবে না হলে কত লোক আক্রান্ত হয়েছেন তা বলা সম্ভব নয়। বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক ডা. ইকবাল হাসান বলেন, প্রায় প্রতিদিনই তার কাছে বেশ কিছু রোগী শ্বাসকষ্ট ও জ্বর নিয়ে আসেন। তাদেরকে পরামর্শ দেয়া সম্ভব হচ্ছে না।

মহাখালী রোগ নির্ণয় কেন্দ্রে পাঠানোর পর অনেকেই ফিরে এসে বলছেন, তাদের পক্ষে সেখানে ঢোকাই সম্ভব নয়।

রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা ইনস্টিটিউটের পরিচালক ডা. মীরজাদী সেব্রিনা ফ্লোরা মঙ্গলবার জানিয়েছেন, দেশে আরো ২ জন করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছেন। এ নিয়ে ১০ জন শনাক্ত হলেন।

ডা. সেব্রিনা সবাইকে মাস্ক ব্যবহার ও ১ মিটার দূরে থাকার পরামর্শ দিয়েছেন। গার্মেন্টস কর্মীদের স্বাস্থ্য পরীক্ষা করতে বলা হয়েছে। সরকারের তরফে বলা হয়েছে, কল-কারখানা বন্ধ করার মতো পরিস্থিতি তৈরি হয়নি।

জ্বর, হাঁচি-কাশি থাকলে মসজিদে না যাওয়ার পরামর্শ দিয়েছে ইসলামী ফাউন্ডেশন।

হযরত শাহজালাল বিমানবন্দরে ২ জন বিদেশীকে পুশব্যাক করা হয়েছে। ১ জন যুক্তরাষ্ট্র ও অপরজন আইভরিকোস্টের। বিদেশী নাগরিকদের জন্য অন-এরাইভাল ভিসা আগেই স্থগিত রাখা হয়েছে।

ইতালি ফেরত ৮ জনকে গাজীপুরের পূবাইল থেকে কুয়েত-মৈত্রী হাসপাতালে নেয়া হয়েছে।

সর্দি-কাশি আর জ্বরের উপসর্গ নিয়ে এক আনসার সদস্যের মৃত্যুতে গভীর উদ্বেগ তৈরি হয়েছে। বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিলে কর্মরত এই আনসার সদস্য ছুটি নিয়ে রংপুরে তার গ্রামের বাড়িতে যান। সেখানেই সম্প্রতি তার মৃত্যু হয়। কম্পিউটার কাউন্সিল কার্যালয়ে কর্মরত বাকি সদস্যদের স্বাস্থ্য পরীক্ষার নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

সম্পর্কিত লেখা


আরও পড়ুন