রবিবার, ১৯ জুন ২০২১; ২:৫৮ পূর্বাহ্ণ


করোনাভাইরাসের কারণে বিশ্বে অর্থনৈতিক সংকট প্রবল হতে পারে। আর বিশ্বের বিভিন্ন দেশের সরকার যদি সুরক্ষামূলক ব্যবস্থা না নেয়, তবে প্রায় আড়াই কোটি মানুষ তাঁদের চাকরি হারাবেন। আন্তর্জাতিক শ্রম সংস্থা (আইএলও) আজ বুধবার এ শঙ্কার কথা জানিয়েছে। খবর রয়টার্সের।

তবে আইএলও বলেছে, ২০০৮ সালে বৈশ্বিক মন্দার সময় যেভাবে বিশ্বব্যাপী সমন্বিত উদ্যোগ নেওয়া হয়েছিল, তেমনটা করা হলে সম্ভাব্য বেকারত্বের হার অনেক কম হতে পারে।

সংস্থাটি বৈশ্বিক এ দুর্দশা থেকে রক্ষায় জরুরি, বৃহৎ ও সমন্বিত উদ্যোগের তাগিদ দিয়েছে। এর পাশাপাশি আর্থিক প্রণোদনা এবং আয় ও চাকরির ক্ষেত্রে সহযোগিতা দেওয়ার কথাও বলেছে।

এসব উদ্যোগের মধ্যে আছে সামাজিক সুরক্ষা, স্বল্পমেয়াদি কাজের পরিধির প্রসার, ছোট ও মাঝারি আকারের শিল্পের শুল্ক হ্রাস।

করোনা মহামারির প্রভাব খুব স্বল্পমাত্রায় হলে চাকরি হারাবেন অন্তত ৮০ লাখ মানুষ। আর এর প্রভাব খুব বেশি মাত্রায় হলে বেকার হয়ে পড়া মানুষের সংখ্যা দাঁড়াবে ২ কোটি ৪৭ লাখ। ২০০৮-০৯ সালে বৈশ্বিক আর্থিক সংকটের সময় চাকরি হারিয়েছিলেন ২ কোটি ২০ লাখ মানুষ।

আইএলওর মহাপরিচালক গাই রাইডার বলেন, ‘এটা শুধু বৈশ্বিক স্বাস্থ্য সংকট না, এটা বৈশ্বিক শ্রমবাজার এবং অর্থনীতির সংকট। মানুষের ওপর এর ভয়ানক প্রভাব আছে।

২০০৮ সালে সারা বিশ্ব সংকট থেকে উত্তরণে সমন্বিতভাবে লড়াই করেছিল। এর ফলে ভয়াবহ পরিস্থিতি সামাল দেওয়া গিয়েছিল। বর্তমান পরিস্থিতি থেকে উত্তরণে এখনো তেমন নেতৃত্ব দরকার।’

সম্পর্কিত লেখা


আরও পড়ুন