, ১ জানুয়ারি ২০২১; ৩:০৫ অপরাহ্ণ


কোটা সংস্কার আন্দোলন যখন সকল ছাত্রসমাজকে স্পর্শ করেছে তখনোই প্রশাসন মরিয়া হয়ে উঠে এই আন্দোলনকে বানচাল করার জন্য। ছাত্রসমাজের উপর নেমে আসে নির্যাতন। নির্বিচারে চলে টিয়ারশেল, লাঠিপেটা ও রাবার বুলেট। সে বুলেটের আঘাতেই আহত হয় জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের মেধাবী ছাত্র আরেফিন শেখ।

আরেফিন ম্যানেজমেন্ট বিভাগের ৪৬তম ব্যাচের শিক্ষার্থী। পুলিশের রাবার বুলেটের আঘাতে তার চোখের ভেতর স্প্রিন্টার ঢুকে যায়। প্রথমে একটি অপারেশন করা হলেও পুরোপুরি সেরে উঠেনি সে। আগামীকাল ১০-০৬-২০১৮, রোজ- রবিবার, সকাল ১০ টায় জাতীয় চক্ষু বিজ্ঞান ইনস্টিটিউট ও হাসপাতাল, আগারগাও এ আরেকটি অপারেশন করা হবে।

বাংলার ছাত্রসমাজ এই আন্দোলনে যারা আহত হয়েছেন তাদের পাশে সবসময়ই ছিল এবং ভবিষ্যতেও থাকবে। আরেফিন শেখও একা নয়, গোটা বাংলার ছাত্রসমাজ আজ তোমার যন্ত্রণা লাঘবের জন্য প্রার্থনা করছে।

 

কোটা নিয়ে আরো পড়ুনঃ

সম্পর্কিত লেখা


আরও পড়ুন